হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে থানার ভেতর দুই ছাত্রলীগ নেতার হাতাহাতি, এরপর গাড়ি ভাঙচুর

Spread the love

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে ‘কমিউনিটি পুলিশিং ডে’ অনুষ্ঠান শেষে নবীগঞ্জ থানা কক্ষের ভেতরে দুই ছাত্রলীগ নেতার সিটে বসা নিয়ে হাতাহাতির ঘটনাকে কেন্দ্র নবীগঞ্জ নতুন বাজার মোড়ে এক ছাত্রলীগ নেতার একটি প্রাইভেট কার ভাঙচুর করা হয়েছে। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক ভাবে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

জানা যায়, শনিবার দুপুরে নবীগঞ্জে ‘কমিউনিটি পুলিশিং ডে’ অনুষ্ঠান শেষে উক্ত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি গাজী মোহাম্মদ শাহ নওয়াজ মিলাদ এমপিসহ অতিথিবৃন্দ আপ্যায়নের জন্য নবীগঞ্জ থানা কক্ষে যান। এ সময় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়ছল তালুকদার ও শামিনুর মিয়া নামের অপর এক ছাত্রলীগ নেতার মধ্যে সিটে বসা নিয়ে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। তাৎক্ষণিকভাবে এমপি গাজী মোহাম্মদ শাহ নওয়াজ মিলাদ ও উপস্থিত আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ বিষয়টি মীমাংসা করে দেন।

পরবর্তীতে উপজেলার ফুটারমাটি গ্রামের গজল মিয়ার ছেলে শামিনুর মিয়া তার প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্রো গ-১২-৭৩৫৯) যোগে বাড়ি ফেরার পথে শহরের নতুন বাজার মোড়ে পৌঁছামাত্রই আগে থেকে ওঁত পেতে থাকা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী তার ওপর হামলা চালায়। এ সময় শামিনুরের প্রাইভেট কারটি ভাঙচুর করা হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

এ ব্যাপারে শামিনুর মিয়া বলেন, ফয়ছলের নেতৃত্বে কিছু নেতাকর্মী আমার গাড়ী ভাঙচুর করেছে। এ ঘটনায় আমি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়ছল তালুকদার বলেন, আমি এই হামলার বিষয়ে কিছু জানিনা। কে বা কাহারা হামলা করেছে আমার জানা নাই।

এ ঘটনায় নবীগঞ্জ থানার ওসি আজিজুর রহমানজানান, এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এখনও লিখিত কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তবে ঘটনায় জড়িতদের ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *