রোবট দিয়ে করোনাভাইরাসকে নষ্ট করার পরিকল্পনায় শক্তিশালী সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র চীন

Spread the love

স্টাফ রিপোর্টার” শেখ জুয়েল রানা’

বেইজিং (চীন), ২৭ মার্চ ২০২০: করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সচেষ্ট সারা পৃথিবীর মানুষ। এর বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে পুঁজিবাদী বিশ্বের মোড়ল যুক্তরাষ্ট্র ও এক সময়ের সমাজতান্ত্রিক দুনিয়ার বৃহৎ দেশ রাশিয়ার মতো শক্তিশালী দেশগুলো। তবে পিছিয়ে নেই এশিয়াও। সর্ববৃহৎ মহাদেশের অতীব শক্তিশালী সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র চীনেই যেহেতু করোনা ভাইরাস প্রথম আঘাত হেনেছিল, তাই সেই করোনাকে রুখে দিতে বেশ কয়েকধাপ এগিয়েছে তারা।
বিশ্বের অন্য সব দেশ যখন জীবাণুনাশক, স্প্রে ইত্যাদি নিয়ে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেমেছে, তখন রোবট দিয়ে এই ভাইরাসকে নষ্ট করতে বদ্ধ পরিকর চীন।
চীনে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ কমাতে ব্যবহার করা হচ্ছে একটি রোবট। যেটি আসলে একটি ইউভিডি রোবট।

ব্লু ওশান রোবোটিক্স নামে একটি কোম্পানি এই রোবটের প্রস্তুতকারক। জানা গেছে, একাধিক ভাইরাসকে বিনষ্ট করতে এই ভাইরাসের জুড়ি মেলা ভার। তবে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে অবশ্য সফলভাবে এই রোবটকে তেমন ব্যবহার করা হয়নি। এই রোবট করোনাভাইরাসকে নষ্ট করতে পারবে কিনা, তা নিয়ে এখনও পরীক্ষা চলছে।
জানা গেছে, চীনের বেশ কয়েকটি হাসপাতালে কাজ করা শুরু করেছে এই বিশেষ ইউভিডি রোবট।
শুধু তাই নয়, এই রোবট কোম্পানির ভাইস প্রেসিডেন্ট সাইমন এলিসন দাবি করেছেন, এশিয়ার বিভিন্ন দেশেও পৌঁছে দেওয়া হয়েছে এই রোবটকে। এমনকি তিনি জানিয়েছেন, করোনায় প্রায় ভেঙে পড়া ইতালি থেকেও এই রোবটের প্রতি আগ্রহ দেখানো হয়েছে।
প্রকৃতপক্ষে এই রোবটটি আসলে একটি লাইট রোবট। জীবাণুনাশক আলোকরশ্মির সাহায্যে এই রোবট ভাইরাসকে নষ্ট করে। এই রোবটের দাম ৬৭ হাজার মার্কিন ডলার। বাংলাদেশী মুদ্রায় এর দাম (৬৭০০০×৮৪.৩৫= ৫৬,৫১৪৫০ টাকা)। বিজ্ঞানীরা আশা করছেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের ক্ষেত্রে সক্রিয় ভূমিকা নেবে এই রোবট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *