বিশ্ব সংগীত দিবসে বাউলা দিপু’র নতুন গান ‘পিরিতের লাগিয়া’

Spread the love

আল আমিন মিয়া, শ্রীমঙ্গল  :
জনপ্রিয় বাউলশিল্পী দিপু’র কণ্ঠে গাওয়া ‘পিরিতের লাগিয়া’ গানটির শোটিং করা হয়েছে। গত ১৩ জুন রবিবার গানের শোটিং সম্পন্ন হয়েছে। বাংলা লোসংস্কৃতির অন্যতম তিনটি ধারার সমন্বয়ে অপরূপ আবহে ফোঁটে ওঠেছে গানের মিউজিক ভিডিওটি। গানের আউটডোর দৃশ্যে রেকর্ড করা হয়েছে চা শ্রমিকের ঐতিহাসিক ঝুমুর নৃত্য, মনিপুরী নৃত্য ও লোকনৃত্য। বিশ্ব সংগীত দিবস উপলক্ষে আগামী ২১ জুন বাউলা দিপু’র অফিসিয়্যাল চ্যানেল হতে গানটি মুক্তি পাবে।
শৈশব হতেই মাসি নীশারানীর সাহ্নিধ্যে উৎসাহীত হয়ে সংগীতে উৎসাহী হয়ে ওঠে বাউলা দিপু’র। পুরো নাম অলক কান্তি মহালদার। জন্ম হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড শিবপাশা এলাকায়। পিতা মৃত অমীয় কান্তি মহালদার ছিলেন স্থানীয় দৌলতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, মাতা শিখা রানী মহালদার গৃহিনী।
মূলতঃ বাউল গান ও মাটির গানের প্রতি খুবই দুর্বল দিপু। শাহ আব্দুল করিম, রাধারমন, দূরবীন শাহ, সীতালং ফকির, হাছন রাজা ও লালন শাহ’র গান গেয়ে থাকেন বেশী। এ পর্যন্ত তার ১৩টি একক এ্যালবাম ও ৬টি মিক্সড এ্যালবাম বাজারজাত করা হয়েছে। তার মধ্যে অন্তরযামী, বন্ধুয়ার গান, সরলা, সজনী, পিতলের কলসি ইত্যাদি উল্লেখযোগ্যভাবে ভক্ত ও শ্রুতাদের মধ্যে সাড়া জাগিয়েছে। ইতোমধ্যে বাউল শফি মন্ডল, রিংকু, লায়লা, বিউটিসহ বিভিন্ন শিল্পীদের সাথে মিক্সড এ্যালবামে যুক্ত হয়েছেন দিপু।


বাংলাদেশ টেলিভিশন, এনটিভি, দেশটিভি ও মাছরাঙ্গা টিভিসহ দেশের জনপ্রিয় বেশ কয়েকটি টিভি চ্যানেলে নিয়মিত ফোনলাইভে বাউলা দিপু’র কণ্ঠে গাওয়া বিভিন্ন সংগীত পরিবেশিত হয়ে আসছে। লোকগান গেয়ে জাতীয় সম্মান অর্জন করেন বাউলা দিপু, সরকারি, বেসরকারি সংস্থা কর্তৃক পুরুস্কৃত হয়েছেন বহুবার। ইতোমধ্য লোকগান নিয়ে বেশ কয়েকটি দেশ ভ্রমন করেছেন তিনি। তন্মধ্যে ভারত, দুবাই ও কাতারসহ অন্যান্ন দেশে সংগীত পরিবেশন করে সম্মান অর্জন করেন।
বাউলা দিপু’র সংগীত জীবনে প্রথম পদার্পন ঘটে বাংলাদেশ বেতারের সিলেট অঞ্চলের নিয়মিত শিল্পী শ্রীরাখাল চক্রবর্ত্তী’র মাধ্যমে। দীর্ঘ ১১ বছর গুরুর নিকট হতে তালিম নেওয়ার পর দেশের বিশিষ্ট বংশীবাদক ও কণ্ঠশিল্পী বারী সিদ্দিকীর নিকট হতে ৮ বছর তালিম নেন দিপু। সম্প্রতি এক সাক্ষাতে দিপু’র কণ্ঠের ভূয়সী প্রসংসা করে বর্তমানে লালন ফকিরের ধারক ও বাহক বাউল শফি মন্ডল বলেন, দিপু তো মফস্বলের শিল্পী নয়, সে দেশের রত্ন। তার জন্য শুভ কামনা সবসময়।
করোনাকালীন সময়ে সংগীত অঙ্গনে কেমন দিন কাটাচ্ছেন জানতে চাইলে বাউলা দিপু বলেন, এখন আমাদের দুঃসময় চলছে। তথাপী সংগীত ছাড়া চলতে পারি না। তাই বিশ্ব সংগীত দিবস উপলক্ষে ভক্তি ও ভালবাসার টানে সকল শ্রুতাদের জন্য ‘পিরিতের লাগিয়া’ গানটি উপহার দিলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *