বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে শ্রীমঙ্গলে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ

Spread the love

শ্রীমঙ্গল, ১১ ডিসেম্বর ২০২০ : স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে ও জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সাংবাদিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে শ্রীমঙ্গলে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট।

অদ্য ১১ ডিসেম্বর ২০২০ শুক্রবার বিকাল ৩ টায় শ্রীমঙ্গল পৌরসভার সম্মুখ সড়কে এ মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এ মানববন্ধন ও সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর সৈয়দ মুয়ীজুর রহমান, ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও কবি দ্বীপেন্দ্র ভট্টাচার্য্য, শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের সভাপতি বিশ্বজ্যোতি চৌধুরী, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য, অারপি নিউজের সম্পাদক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ অামিরুজ্জামান; চন্দ্রনাথ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও শ্রীমঙ্গল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি জহর তরফদার, বাংলাদেশ জাসদের মৌলভীবাজার জেলা সভাপতি ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সালেহ সুহেল, শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি ইসমাইল মাহমুদ, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিনিধি দিপঙ্কর ভট্রাচার্য লিটন, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বিকুল চক্রবর্তী, উপজেলা প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি চৌধুরী ভাস্কর হোম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সাপ্তাহিক শ্রীমঙ্গল বার্তার সম্পাদক মোমিনুল হোসেন সোহেল, উপজেলা পরিষদের সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জয়শ্রী চৌধুরী শিখা, সারগাম অধ্যক্ষ বুলবুল আনাম চৌধুরী, শ্রীমঙ্গল দ্বারিকাপাল মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক রজত শুভ্র চক্রবর্তী, ফারিয়ার সভাপতি দেবব্রত দত্ত হাবুল, সাপ্তাহিক শ্রীমঙ্গল বার্তার বার্তা সম্পাদক মামুন আহমেদ, ঝলক দত্ত, এশিয়ান টিভির প্রতিনিধি এস কে দাশ সুমন, আমার সিলেটের প্রধান সম্পাদক ও শ্রীমঙ্গল অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি আনিসুল ইসলাম আশরাফী, আমার সিলেটের বার্তা সম্পাদক কৃষক আব্দুল মজিদ, বাংলাদেশ প্রতিক্ষণ এর স্টাফ রিপোর্টার, সাংবাদিক রূপম আচার্য, দৈনিক জবাবদিহি পত্রিকার প্রতিনিধি শামসুল ইসলাম শামীম, দৈনিক তৃতীয় মাত্রার প্রতিনিধি রূপক দত্ত, সঙ্গীত শিল্পী সুশীল শীল, নাট্যকর্মী ও নৃত্য শিক্ষক দ্বীপ দত্ত আকাশ, সঙ্গীত শিল্পী সাজ্জাদ হোসেন, নৃত্য শিক্ষক সাজু দেব, সাংবাদিক কাওসার ইকবাল, অনিরুদ্ধ সেনগুপ্ত, কামরুল হাসান দোলন, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর প্রসেনজিৎ রায় বিষু, পুলক কান্তি চক্রবর্তী, সাংস্কৃতিক কর্মী মলয় কুমার রায় ভানু, কাওছার আহমেদ রিয়ন, প্রনবেশ চৌধুরী অন্তু, শিক্ষক আবুল কাশেম, ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক নেতা ও লেখক বিকাশ দাশ বাপ্পন, নিতেশ সূত্রধর, দ্বিগবিজয় রায় আকাশ, নাট্যকর্মী পংকজ কুমার নাগ, বাবলু রায় সহ নানা শ্রেণি-পেশার অন্যান্য প্রতিনিধিরা।

বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতা ও মুক্তির প্রতীক। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের অস্তিত্ব। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙ্গা মানে বাংলাদেশের অস্তিত্বের উপর আঘাত। বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িকতার প্রতীক। বাংলাদেশ সকল জাতি ও ধর্মের মানুষের ভাতৃত্বের বন্ধনের এক দেশ। অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক অাধুনিক সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন নিয়ে বঙ্গবন্ধু দেশকে স্বাধীন করেছেন। তাই বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য যারা ভাঙ্গার মতো সাহস করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *