প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন ও তদারকির ব্যবস্থা নিন’ : জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন

Spread the love

স্টাফ রিপোর্টার” শেখ জুয়েল রানা’

ঢাকা, ২৭ মার্চ ২০২০: প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন ও তদারকির ব্যবস্থা গ্রহণ এবং করোনা ঝুঁকি মোকাবিলায় অসংগঠিত খাতের শ্রমিকদেরও আপদকালীন নগদ সহায়তার আহ্বান জানিয়েছে জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন।
সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কামরূল আহসান ও সাধারণ সম্পাদক আমিরুল হক আমিন স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিবৃতিতে এ আহ্বান জানানো হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণকে দিকনির্দেশনা মূলক বার্তা অভিহিত করে নেতারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে গৃহীত পদক্ষেপ এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ও বাস্তবায়নে গুরুত্বারোপ করেছেন। রপ্তানিমুখী শিল্প প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক কর্মচারীদের বেতন ভাতা পরিশোধে প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ হাজার কোটি টাকা প্রণোদনার ঘোষণা দিয়েছেন এজন্য তাকে ধন্যবাদ জানাই।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে অনেক মানুষ কাজ হারিয়েছেন। বিশেষ করে হোম কোয়ারেন্টিন পালনকালে অসংগঠিত খাতের শ্রমজীবী মানুষ যারা দিন আনে দিন খায় তাদের জীবিকার পথ রুদ্ধ হবে, তাদের পরিবার নিয়ে জীবনধারণ সংকটে পড়বে, সরকারকে তাদের পাশেও দাঁড়াতে হবে। তাদেরও আপদকালীন নগদ সহায়তা দিতে হবে।
প্রধানমন্ত্রী নিম্নআয়ের মানুষের ‘ঘরে ফেরা’ কর্মসূচির আওতায় নিজ নিজ গ্রামে সহায়তা, গৃহ ও ভূমিহীনদের জন্য বিনামূল্যে ঘর, ছয় মাসের খাদ্য এবং নগদ অর্থ দেওয়ার কথা বলেছেন। জেলা প্রশাসনকে এ ব্যাপারে যে নির্দেশনা তিনি দিয়েছেন তার বাস্তবায়ন হচ্ছে কিনা, তার তদারকির ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানানো হয় বিবৃতিতে। পাশাপাশি নিম্নআয়ের মানুষের সহায়তায় বিনামূল্যে ভিজিডি, ভিজিএফ এবং ১০ টাকা কেজি দরে চাল সরবরাহ কর্মসূচি অব্যাহত রাখা, একইভাবে বিনামূল্যে ওষুধ ও চিকিৎসাসেবা দেওয়ার যে ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী তা বাস্তবায়নেরও আহ্বান জানানো হয়।

করোনা ঝুঁকি মোকাবিলায় নিম্নআয়ের মানুষসহ অসংগঠিত খাতের শ্রমিকদেরও আপদকালীন নগদ সহায়তা প্রদানসহ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন ও তদারকির ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করেছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য, অারপি নিউজের সম্পাদক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ অামিরুজ্জামান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *