দুই কূলই গেল সেই ১২ কাউন্সিলরের

Spread the love

আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া খুলনা সিটি করপোরেশনের স্বতন্ত্র ও বিএনপিপন্থি ১২ জন ওয়ার্ড কাউন্সিলর বিপাকে পড়েছেন। দলবদলের পর একদিকে বিএনপি থেকে তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে, অপরদিকে আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্র অনুসারে যোগদানের মেয়াদ এক বছর না হওয়ায় চলমান সম্মেলনে তাদের দলের প্রাথমিক সদস্যপদ দিতে অনীহা জানাচ্ছে তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। জানা যায়, গত ২৪ মার্চ নগরীর শহীদ হাদিস পার্কে দলের শীর্ষ নেতাদের হাতে ফুল দিয়ে ওই কাউন্সিলররা আওয়ামী লীগে যোগ দেন। খানজাহান আলী থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আবিদ হোসেন বলেন, দলে যোগ দেওয়া বিএনপিপন্থি ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের সঙ্গে তৃণমূল নেতা-কর্মীদের একটা দূরত্ব রয়েই গেছে। এ কারণে এখনো তাদের দলের প্রাথমিক সদস্যপদ দেওয়া হয়নি। নেতা-কর্মীরা জানিয়েছেন, বিভিন্ন ওয়ার্ডে তাদের ‘হাইব্রিড’ আখ্যা দিয়ে সরাসরি বিরোধিতা করা হয়েছে। বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া কাউন্সিলররা হলেন- ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাইফুল ইসলাম, ৬ নম্বর ওয়ার্ডের শামসুদ্দিন আহমেদ, ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সুলতান মাহমুদ, ৮ নম্বর ওয়ার্ডের এইচ এম ডালিম, ১২ নম্বর ওয়ার্ডের মো. মনিরুজ্জামান, ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের আনিসুর রহমান বিশ্বাস, ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের শেখ হাফিজুর রহমান ও ২০ নম্বর ওয়ার্ডে শেখ মো. গাউসুল আজম। এদের মধ্যে শেখ হাফিজুর রহমান ও আনিছুর রহমান বিশ্বাসকে আগেই বিএনপি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। এ বিষয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সিটি মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক বলেন, গঠনতন্ত্র অনুসারে দলের সদস্যপদ পেতে তাদের এক বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

তবে যেহেতু তারা নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন দলে গুরুত্বপূর্ণ পদে বিভিন্ন সময়ে ছিলেন। এ কারণে শুধু কাউন্সিলরদের বিশেষভাবে দলের সদস্যপদ দিতে কেন্দ্রের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *