কুয়াশায় ঢাকা শ্রীমঙ্গল: তীব্র শীতে কাঁপছে মানুষ

Spread the love

চায়ের রাজধানী খ্যাত মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে জেঁকে বসেছে শীত। প্রকৃতিতে বইছে তীব্র শৈত্য প্রবাহ। ফলে হাড়কাঁপানো শীতে কাঁপছে শ্রীমঙ্গল।

গেল ২দিন শ্রীমঙ্গলে সূর্যের দেখা পাওয়া গেছে খুবই অল্প সময়। সকালে আবহাওয়া ছিল কুয়াশাচ্ছন্ন। তবে ভোরে ও রাতে ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন ছিল সারা উপজেলা। সূর্যের দেখা না পাওয়ায় শীতের তীব্রতা ক্রমশঃই বাড়ছে।

শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনিসুর রহমান জানান, শনিবার শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১১.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শ্রীমঙ্গল আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের আবহাওয়া সহকারি জাহিদুল ইসলাম জানান, সূর্যের দেখা না যাওয়ায় শীতের তীব্রতা বেড়েছে। তাছাড়া মৃদু শৈত্য প্রবাহের কারণেও শীত বেড়েছে। তিনি আরো জানান, আগামী কয়েকদিনে শীতের তীব্রতা আরো বাড়তে পারে।

আবহাওয়া অফিসের রেকর্ড মতে, ১৯৬৮ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি শ্রীমঙ্গলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছিল ২.৮ ডিগ্রি এবং ১৯৬৬ সালের ২৯ জানুয়ারি সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৩.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছিল। এছাড়া ১৯৯৫ সালের ৪ জানুয়ারি, ২০০৭ সালের ১৭ জানুয়ারি এবং ২০১৩ সালের ১০ জানুয়ারি শ্রীমঙ্গলে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছিল ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে শীতের তীব্রতায় খেটে খাওয়া দরিদ্র মানুষজন পড়েছেন বিপাকে। শীতবস্ত্রের দোকানগুলিতে ভিড় করছে মানুষ। শহরের পুরান কাপড়ের একমাত্র বিক্রয় কেন্দ্র সাইফুর রহমান মার্কেটেও ভিড় দেখা গেছে ধনী-গরীব সব শ্রেণির মানুষের। সেখানে কম দামে গরম কাপড় সংগ্রহ করছেন অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *