করোনা সন্দেহে বিনা চিকিৎসায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আলমাছ উদ্দিনের মৃত্যুতে ওয়ার্কার্স পার্টির শোক প্রকাশ

Spread the love

স্টাফ রিপোর্টার” শেখ জুয়েল রানা’

ঢাকা, ২৯ মার্চ ২০২০: ১৯৭২ সালের ৩০ জানুয়ারি বাসাবো মাঠে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিকট অস্ত্র সমর্পণকারী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলমাছ উদ্দিন বিনা চিকিৎসায় চিরবিদায় নিলেন স্বাধীনতার মাসে। ব্রেইন স্ট্রোকে আক্রান্ত হলেও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের সন্দেহে বিনা চিকিৎসায় তিনি মারা গেছেন বলে অভিযোগ করেছেন তার স্বজনরা।
রবিবার সকালে রাজধানীর মুগদা হাসপাতালে তিনি মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন তার দুই ছেলে আরিফ হাসান ও আশফাক আহমেদ। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের সন্দেহে এই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে বারডেম হাসপাতাল, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল, পপুলার হাসপাতালে ও কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল ভর্তি করেনি বলে জানান মরহুমের বড় ছেলে।

শনিবার দিবাগত রাত ১২টায় মুগদা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়, সেখানেই রবিবার সকালে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুর পরে ডেথ সার্টিফিকেট দেয়া হলো ব্রেইন স্ট্রোক। বাদ জোহর বাসাবো মাঠে নামাজে জানাজার পর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মাদারটেক কবরস্থানে দাফন করা হয় তাকে।

মৃত্যুকালে তিনি সহধর্মিণী, দুই ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন। মরহুমের তিন সন্তানই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন। মেয়েটি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভোগের সহকারী অধ্যাপক।
এ বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক যুগ্মমহাসচিব সফিকুল বাহার মজুমদার টিপু গণমাধ্যমকে বলেন, শুধু মুক্তিযোদ্ধা কেন, কোনো রোগীর ক্ষেত্রেই এমনটা হওয়া উচিত নয়। বৈশ্বিক এই মহামারি মোকাবিলার পাশাপাশি অন্যান্য রোগীদের চিকিৎসার বিষয়টিও দেখতে হবে।
১৯৭২ সালের ৩০ জানুয়ারি বাসাবো মাঠে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিকট অস্ত্র সমর্পণকারী ‘৭১-এর বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলমাছ উদ্দিনের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য, অারপি নিউজের সম্পাদক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ অামিরুজ্জামান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *